English

ইংরেজিতে কেন ব্যর্থতা

Why failure in English

ইংরেজি ভাল না লাগার আসল কারণ হল- আমি কীভাবে ইংরেজি শিখেছি অথবা শিখছি। আমাদের সমাজে বেশির ভাগ ছাত্র-ছাত্রী ইংরেজি পরীক্ষায় কিভাবে সহজে পাশ করা যায় সেগুলির সন্ধান করে থাকে। সেজন্য অবশ্য আমাদের বর্তমান প্রেক্ষাপটের কিছু অসাধু ব্যাবসায়ী শিক্ষক বেশি দায়ী। ঐ সকল শিক্ষকগন ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষায় পাশ করার কিছু কৌশল শিখিয়ে দেন। কমন একটা সাবজেক্ট দিয়ে প্যারাগ্রাফ, কম্পোজিশন লেখার জন্য কিছু ইংরেজী কথা লিখে দেন, যার একটা কোনক্রমে মুখস্ত করিয়ে বলে দিবে এটা দিয়ে দুনিয়ার সব প্যারাগ্রাফ/কম্পোজিশন লিখে ফেলবা! এ্যাপলিকেশন/লেটার/ই-মেইল একটা লিখে দিলে হাজারটা কমপ্লিট! শুধু তাই নয় বর্তমানে গ্রামার না শিখেই গ্রামারের নাম্বার পাবার অনেক কৌশল বের করে ফেলেছেন! পরীক্ষায় আসার মত সর্ট সাজেশন্স তো এমনভাবে তৈরী করে ফেলেন যেন প্রশ্নটা উনি দেখে এসেছেন! এখানেই শেষ নয়! তারপর রয়েছে প্রশ্ন ফাস। এরপর আবার ঐ শিক্ষক খুব গর্ব করে শ্রেণী/কোচিং কক্ষে যা কিছু বলে তাতে ব্যবসায়ীক ক্ষেত্রে যে সুফল পায়, তা কোন পন্য কোম্পনীকে পেতে হলে কোটি টাকা খরচ করা লাগবে, তার পন্যের বিজ্ঞাপনে! বেশীরভাগ অভিভাবকগন এব্যপারে একেবারেই উদাসীন। সন্তানের সর্বনাশ কিভাবে হচ্ছে তার খবর রাখেন না।

আর এভাবেই আমাদের সমাজে পাশ করা শিক্ষিত মানুষের সংখ্যা দিন দিন বাড়লেও তারা নিজেরা উদ্যোগ নিতে ভয় পায়। বিএ/এমএ পাশ অথচ নিজের বেকারত্বের কথাও ইংরেজিতে অন্যের নিকট ব্যক্ত করতে পারে না।

ইংরেজি জানা থাকলে নিজের ওপর নিজের আত্মবিশ্বাস অনেক বেড়ে যায়। ইংরেজি ভাষা সঠিক ভাবে জানা থাকলে পৃথিবীর যে কোন দেশে গিয়ে জীবন যাপন করা যায়। উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য এদেশ-বিদেশ কোথাও সমস্যা হয়না। বর্তমান টেকনোলজির যুগে সারা বিশ্বের ইংরেজি জানা মানুষ ঘরে বসে ইন্টারনেট ব্যবহার করে নিজের ঘরে বসে কাজ শিখে, ঘরেই নিজের পিসিতে ফ্রিল্যন্সিং/আউটসোর্সিং করে হাজার-হাজার, লাখ-লাখ টাকা উপার্জন করছে! আমাদের দেশে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের জন্য এটা একটা সর্বজন স্বিকৃত একটি চমৎকার পন্থা।

আত্মিয়-স্বজনের নিকট ধর্ণা ধরা, হাতপাতা, নিজের প্রয়োজনীয় অর্থের জন্য নোংরা অপরাধে জড়িত হয়ে যাওয়া একদম কমন হয়ে গেছে।

লিখতে লিখতে একটু বেশি রসবিহীন কথা লিখে ফেললাম। কাউকে কষ্ট দিয়েছি মনে হলে-আন্তরিক ভাবে ক্ষমা চাইছি।

The real reason why English is not good is – how I learned or learned English. In our society, most students are looking for how to easily pass English exams. That is why some unfounded business teacher in our current context is more responsible. Those teachers taught students some techniques to pass the test. Paragraphs with a simple subject, write some English words for writing compositions, which will be memorized in some way by writing it all the paragraphs / compositions of the world! Application / Letter / e-mail one thousand, write complete! Not only now, Gramar has learned many techniques to get the number of grammar! As soon as the test was done, the short suggestions were made in such a way that he came to see the question! This is not the end! Then there are questions. Then again, the teacher who is very proud to get the benefit of the business in the class / coaching room, he will have to spend millions of rupees to get a product company, advertise his product! Most parents are totally indifferent to this. Do not keep track of how the child is being destroyed.

And in the same way the number of educated people passed in our society is increasing day by day, but they are afraid to take their own initiative. BA / MA passes but can not even express their unemployment to others in English.

Knowing English increases your self-confidence in yourself. If you know the language correctly, you can live in any country of the world. There is no problem anywhere in this country and abroad to achieve higher education. In the era of the current technology, the English people in the world are sitting at home using their internet and learning to work in their home, earning thousands of lakhs of lakhs of money by outsourcing their own home. This is a well-documented method for earning foreign currency in our country.

Attaining guilt to the relatives, handpumps, and getting involved in a dirty crime for the necessary money has become quite common.

I wrote a little more relaxed writing to write. I feel sorry for someone – I sincerely apologize.